কৃষিবিদ আসাদুল্লাহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক:: ফেইসবুকে অভিনন্দনের হিড়িক

প্রকাশিত: ৮:৪৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০২০

কৃষিবিদ আসাদুল্লাহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক:: ফেইসবুকে অভিনন্দনের হিড়িক

মো. মোশারফ হোসাইন, শেরপুর প্রতিনিধি:

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয়ের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক (ডি.জি) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন কৃষিবিদ মো. আসাদুল্লাহ। তাঁর নিয়োগের সংবাদ বিভিন্ন তথ্যের মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পরে সর্ববৃহত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে তাকে উদ্দেশ্য করে অভিনন্দনের হিড়িক পড়ে গেছে।

২৯ অক্টোবর বৃহস্পতিবার মহামান্য রাষ্ট্রপতি মহোদয়ের আদেশক্রমে উপসচিব মো. জসিম উদ্দিন’র স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রের মাধ্যমে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক হিসেবে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয় সম্প্রসারণ-১ শাখা এর নিজস্ব প্যাডে তাঁর নিয়োগের বিষয়টি পত্রাকারে প্রকাশ করা হয়। এর পর থেকেই নিজ নিজ ফেইসবুক টাইম লাইনে নতুন ডি.জি-কে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানানো শুরু করেন বিভিন্ন জেলা-উপজেলার বিভিন্ন স্তরের কৃষি কর্মকর্তা, বিভিন্ন কৃষি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও কৃষি সংশ্লিষ্ট অনেকেই।

বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য সূত্রের তথ্য মতে, কৃষিবিদ মো. আসাদুল্লাহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামার বাড়ি ঢাকার সরেজমিন উইং পরিচালক হিসেবে কর্মরত আছেন। বর্তমান তাকে পদায়ন করে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামার বাড়ি ঢাকার চলতি দায়িত্বে মহাপরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

কৃষিবিদ মো. আসাদুল্লাহ’র দেওয়া তথ্য মতে জানা গেছ, মো. আসাদুল্লাহ জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ি উপজেলার সমভ্রান্ত এক মোসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি ৭ম বি.সি.এস (কৃষি) হিসেবে ক্যাডারভুক্ত হন। বি.সি.এস (কৃষি) হিসেবে ক্যাডারভুক্ত হয়ে বগুরা জেলার গাবতলী উপজেলায় এসএমও হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। এর পরে পর্যায়ক্রমে শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী উপজেলায় এস.এম.ও হিসেবে, পরে একই জেলার নকলা উপজেলা কৃষি অফিসার হিসেবে প্রায় ৬ বছর কর্মরত ছিলেন। তারপর পি.পি.এস হিসেবে ময়মনসিংহ জেলায়, এরপরে নেত্রকোনা ও সিলেট জেলায়। অতঃপর জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার হিসেবে গাজীপুর জেলায়, উপপরিচালক  হিসেবে কুমিল্লাহ জেলায়, ময়মনসিংহ অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক হিসেবে, পরে খামারবাড়ি ঢাকায় কৃষি তথ্য সার্ভিসের পরিচালক হিসেবে, তারপর খামারবাড়ি ঢাকায় পরিকল্পনা উইং এর অতিরিক্ত পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামার বাড়ি ঢাকার সরেজমিন উইং পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে তিনি পদোন্নতি পেয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামার বাড়ি ঢাকার মহাপরিচালক (ডি.জি) পদে চলতি দায়িত্বে নিয়োগ পেয়েছেন। এ সকল তথ্য পেতে এই প্রতিবেদককে যে বা যারা সহায়তা করেছেন তাদের মধ্যে শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. হুমায়ূন কবীর ও একই জেলার নকলা উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ পরেশ চন্দ্র দাস, কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ আব্দুল ওয়াদুদ এদের নাম উল্লেখযোগ্য।

মেধা, সততা, বিচক্ষণতা, নিষ্ঠা ও কর্ম দক্ষতার অপূর্ব সংমিশ্রণে বিশ্বব্যাপী এ দেশের কৃষি দপ্তরকে কৃষিবান্ধব দপ্তর হিসেবে পরিচিত করে তুলবেন। কৃষি বিষয়ক আধুনিক সেবাদান সমূহ গ্রাম পর্যায়ের কৃষকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের কৃষি ব্যবস্থাকে বিশ্ব মানের ও অত্যাধুনিক উন্নয়নের মডেল হিসেবে গড়ে তুলবেন বলে আশা করছেন সর্বস্তরের কৃষক ও কৃষি কর্মকর্তাগন। নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যেন সততা, নিষ্ঠা ও কর্ম দক্ষতার মাধ্যমে যথাযথ ভাবে পালন করতে পারেন এর জন্য দেশবাসীর কাছে বিশেষ করে কৃষক, সকল স্তরের কৃষি অফিসার ও কৃষি সংশ্লিষ্ট সকলে কাছে দোয়া কামান করেছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে সদ্য নিয়াগ প্রাপ্ত মহাপরিচালক (ডি.জি) কৃষিবিদ মো. আসাদুল্লাহ।

নিউজ টি শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন.